কিভাবে আপনার রান্নাঘরের চিমনি পরিষ্কার করবেন

কিভাবে আপনার রান্নাঘরের চিমনি পরিষ্কার করবেন-জেনে নিন কিছু সহজ আর সাধারণ উপায়

আমরা তো রোজ রোজ হরহামেশাই মজার মজার সব খাবার চোখের পলকে রান্না করে ফেলছি । আমার আমাদের এসব খাবার তৈরিতে আমরা ব্যবহার করছি ভিনেগার, মসলা আরও কত কি যা থেকে ধোঁয়া উৎপন্ন হয় । আর এসব ধোঁয়া আর এর দুর্গন্ধ থেকে আপনার ঘরকে সুরক্ষিত রাখছে আপনার রান্নাঘরের চিমনি। চিমনি শুধু তাই করে না, এটা আমার ঘরকে তেল চিটচিটে হতে দেয় না, রান্নার তেল , মসলা, ধুলা এগুলিকে চিমনি নিজের দিকে টেনে নিয়ে আপনার রান্না ঘর ও ঘরেকে ধোঁয়া, তেল এসবের গন্ধ থেকে রক্ষা করছে। তাই এখনই আপনার মনে হবে –কিভাবে আপনার রান্নাঘরের চিমনি পরিষ্কার করবেন ? 

তাহলে চিমনি পরিষ্কার করার উপায় কি?

কিভাবে আপনার রান্নাঘরের চিমনি পরিষ্কার করবেন

আমার আপনার দুশ্চিন্তা বুঝি আর তাই এখানে আমরা আপনাদেরকেকে বলব কিভাবে আপনার রান্নাঘরের চিমনি বা চিমনি ফিল্টার পরিষ্কার করবেন ।

১) আমাদের উপমহাদেশে সাধারণত জালের মতো ফিল্টার থাকে আমাদের চিমনিগুলিতে। এগুলিকে বেফেল ফিল্টার ও মেশ বা জাল ফিল্টার বলে। বেফেল ফিল্টার হলে প্রতি ২-৩ সপ্তাহ পর পর আপনাকে পরিষ্কার করতে হবে। হালকা গরম পানি নিতে এতে ডিটারজেন্ট নিয়ে ফিল্টার পরিষ্কার করতে পারেন । এতে তেল জাতীয় পদার্থ উঠে যাবে।

জাল জাতীয় ফিল্টারগুলি তে ছোট ছোট ছিদ্র থাকে যা দিয়ে ছোট কোন বস্তু কনা ঢুকে এই ছিন্দ্র গুলো বন্ধ করে দিতে পারে। তাই এই জাল ফিল্টার ৮-১০ দিন পর পরই পরিষ্কার করতে হবে। চিমনি পরিষ্কার করার আগে সাবান জল দিয়ে এটি একটু ভিজিয়ে রাখবেন যাতে তেল, ময়লা নরম হয়ে যায় । তবে খুব শক্তিশালী ডিটারকজেন্ট ব্যবহার করবেন না এতে আপনার ফিলটারের সারফেসের ক্ষতি হতে পারে।

২) কখনও কখনও হালকা ডিটারজেন্ট আর গরম পানি আপনার ফিল্টার পরিষ্কার করার জন্য যথেষ্ট নয়। তাই তখন সোডিয়াম হাইড্রঅক্সাইড বা কাস্টিক সোডা ব্যবহার করে ফিল্টার পরিষ্কার করুন। এই পদ্ধতিটি একটু বিপদজনক। তাই যারা একটু ভিরু চিত্তের তাদেরকে এই কাজ করা থেকে দুরে রাখবেন।  এই রাসায়নিক অত্যন্ত ক্ষতিকর এবং দাহ্য । তাই, অবশ্যই গ্লোভ ব্যবহার করবেন আর সুরক্ষিত কাপড় পরিধান করে নিবেন।

খুব জোরে জোরে নিঃশ্বাস নিবেন না। আপনার রেফেল ফিল্টারটি সরিয়ে একটি ধাতব বা কাচের ট্রেতে রেখে বাথরুমে পানির কলের বা ট্যাপ এর নীচে রাখবেন। কাস্টিক সোডা চিমনির উপরে ছড়িয়ে দিয়ে গরম পানি এর উপর দিবেন।

একটু দূর থেকে কাজটি করবেন আর ধোঁয়া হলে জোরে নিঃশ্বাস নিবেন না। আপনার ফিল্টার এর ময়লার স্তরের উপর নির্ভর করে এক ঘন্টার মত এটি রাখবেন।এবার পানির ট্যাপ খুলে দিয়ে বেশী পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। । আপনি এটি ধোয়ার সময় এই পানি থেকেও দূরে থাকবেন। অনেক পানি দিয়ে ধোয়ার পর দেখবেন যে আপনার বেফেল ফিল্টার একদম ঝকঝকে পরিষ্কার।

৩) চারকল ফিল্টার পরিষ্কার করা যায় না। প্রতি ৪-৫ মাস পর পর এগুলি পাল্টে ফেলতে হয়।

৪ ডাক্ট টেপ চিমনি স্ক্রাব আর সাবান দিয়ে মাসে একবার পরিস্কার করলেই হবে। এগুলি বেফেল বা জাল ফিল্টারের তুলনায় পরিষ্কার করা সহজ।

এই সহজ, কিন্তু কার্যকরী, পরিস্কারের পন্থাগুলি মনে রাখুন আর চেষ্টা করেই দেখুন আপনার রান্নাঘরের চিমনি কেমন ঝক ঝক করে। তবে আপনাকে চিমনি পরিস্কারের জন্য সময় দিতে হবে আর নিখুঁত ভাবে কাজটি করতে হবে। তাড়াহুড়া করে, আপনি চিমনি পরিষ্কার করতে পারবেন না।

আমাদের দেয়া এই টিপস গুলি মনে রেখে কাজ করুন -আশা করি এখন থেকে আপনার চিম পরিষ্কার করা আর কোন ঝামেলাই হবে না।

 

Comments

comments

Join the discussion

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।