জেডটিই(ZTE) নতুন ডুয়েল স্ক্রিন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন এক্সন-এম ( Axon M )শীঘ্রই বাজারে আসছে।

জেডটিই (ZTE) সম্প্রতি প্রকাশ করতে চলেছে তাঁদের নতুন ডুয়েল স্ক্রিন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন এক্সন-এম ( Axon M )

 

জনপ্রিয়  চায়নিজ  মোবাইল ফোন ম্যানুফেকচার কোম্পানি জেডটিই  (ZTE)  ঘোষণা করেছে তাঁরা সম্প্রতি প্রকাশ করতে চলেছে তাঁদের নতুন স্মার্টফোন এক্সন-এম ( Axon M )  । আকর্ষণীয় এই স্মার্টফোনের প্রধান স্পেসিফিকেশন হিসেবে থাকছে ফোল্ডেবল ডুয়েল স্ক্রিন ফিচার।

জেডটিই(ZTE) নতুন ডুয়েল স্ক্রিন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন এক্সন-এম ( Axon M )

এর আগে স্যামসাং এর এমন ধরণের  ফোল্ডেবল ডুয়েল স্ক্রিন স্মার্টফোন প্রকাশ করার কথা থাকলেও এখন  পর্যন্ত এ ব্যাপারে তেমন কিছু জানা  যায়নি । তবে বর্তমানে জেডটিই এর এই আকর্ষণীয় স্মার্টফোনের খবর ইন্টারনেট এ প্রকাশ হবার পর সকল স্মার্টফোন গ্রাহকদের  মাঝেই বিরাজ করছে অন্যরকম আকর্ষণীয় কিছু পাবার এক ব্যাপক উত্তেজনা ।

সম্প্রতি বিভিন্ন মাধ্যম থেকে জানা যায় এ পর্যন্ত সকল ধরণের স্মার্টফোনের মাঝে এটি সম্পুর্ন আলাদা ধরণের এবং সম্পুর্ন নতুন প্রযুক্তি সম্পন্ন স্মার্টফোন ।

এআরএস  টেকনিকা এর এক রিপোর্ট থেকে জানা যায়  আকর্ষণীয় এই স্মার্টফোনের  ওজন থাকবে অনেক কম এবং এটি মাত্র ১২.১ মিমি চিকন হবে  আর সাথে থাকবে আকর্ষণীয় করনিং গরিলা গ্লাস  ৫ এর  প্রোটেকশন ।  স্মার্টফোনটির দুই পাশের স্ক্রিনের  আয়তন ৫.২ ইঞ্চি এবং ১৯২০x১০৮০ পিক্সেল এর টিএফটি এলসিডি থাকবে বলে জানা যায় ।

মোবাইল এর ফোল্ড অবস্থা থেকে ওপেন করা হলে এর ডিসপ্লে  দেখা যাবে ৬.৭৫ ইঞ্চি এবং রেজুলেশন থাকবে ১৯২০x২১৬০ পিক্সেল যার এস্পেক্ট রেশিও হবে ১৬;৯ ।

 

উভয় পাশের স্ক্রিনের মাঝেই সাপোর্ট করবে ৪কে রেজুলেশনের  মিডিয়া সাপোর্ট আর দুই পাশের ক্যামেরার মাঝে রিয়ার ক্যামেরা থাকছে ২০ মেগাপিক্সেল এবং এপার্চার এফ/১.৮ ।

তবে জেনে রাখা ভালো এই স্মার্টফোনের মাঝে কোন ফ্রন্ট ক্যামেরা নেই কারণ আপনি ২০ মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা এর মাধ্যমেই দুই স্ক্রিন এর মাধ্যমে ফ্রন্ট ও রিয়ার উচয় ক্যামেরার কাজ করতে সক্ষম হবেন ।

আকর্ষণীয় জেডটিই এর নতুন স্মার্টফোন এক্সন এম এর মাঝে থাকছে এন্ড্রয়েড ভার্সন ৭.১.২ অপারেটিং সিস্টেম । স্মার্টফোনটির মাঝে আরো রয়েছে ৪ গিগাবাইট সুপারফাস্ট র‍্যাম সাপোর্ট  এবং ৬৪  গিগাবাইট রম সাপোর্ট । চাইলে আপনি এক্সটারনাল মাইক্রোএসডি কার্ড ও ব্যবহার করতে পারবেন ২৫৬ গিগাবাইট পর্যন্ত ।

স্মার্টফোনটি সম্পুর্ন ২.১৫ গিগাহার্টজ কোয়াড কোর কোয়াল্কম স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর দ্বারা চালিত এবং রয়েছে ৩১৮০ মিলি এম্পিয়ার এর লং টাইম ব্যাকআপ প্রদানে সক্ষম শক্তিশালী লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ।  কোম্পানির মতে স্মার্টফোনটি আপনাকে প্রায় ২৮.৭ ঘণ্টার লম্বা টকটাইম দিতে সক্ষম  এবং যার  স্ট্যান্ডবাই টাইম ১২ দিন ।

এখন পর্যন্ত সকল  দেশে এর বিক্রয় শুরু না হলেও  অতি  দ্রুত এটি সকল দেশে বিক্রয়ের উদ্যেশে বাজারজাত করা শুরু হবে বলে জানা যায় এবং সামনের মাসে এটি আমেরিকার মোবাইল মার্কেটে বিক্রয় শুরু হবে বলেও জানা যায় ।

Comments

comments

Join the discussion

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।