সুজুকি ১৫০সিসি জিএস১৫০আর (GS150R):প্যাসেঞ্জার ও প্রিমিয়াম উভয় শ্রেনীর জন্যই দারুন মানানসই

সুজুকি ১৫০সিসি জিএস১৫০আর (GS150R)


সুজুকি (Suzuki) সিরিজের খ্যাতনামা ব্র‍্যান্ড সুজুকির এর জিএস১৫০আর (GS150R) মোটরসাইকেলটি ১৫০সিসি ইঞ্জিন সমৃদ্ধ স্ট্রীট স্পোর্টস বাইক ।

সুজুকির ১৫০সিসি এর জিএস১৫০আর (GS150R) মোটরসাইকেলটি প্যাসেঞ্জার শ্রেণী এবং প্রিমিয়াম শ্রেনী উভয়ের জন্যই দারুন মানানসই।

সুজুকি ১৫০সিসি জিএস১৫০আর (GS150R) (1)

আমাদের দেশে ১৫০সিসি  কিমিউটার সেগমেন্ট এর অনেক বাইক রাস্তায় চলাচল করে। এরা প্রতিটি নিজ নিজ জায়গায় দারুন, যারা এই সমস্ত বাইক কিনতে যান তখন কনফিউজ হয়ে পড়েন যে কোনটা রেখে কোনটা কিনবেন।

এসকল কনফিউশন দূর করার জন্য আজ আমরা নিয়ে এসেছি সুজুকির ১৫০সিসি এর জিএস১৫০আর (GS150R) মোটরসাইকেলটি ।

Click to read

>>বাজারে সুজুকি লঞ্চ করেছে নতুন ইন্ট্রুডার ১৫০ সিসি <<

দেখে নিন, সুজুকির জনপ্রিয় এ মোটরসাইকেলের প্রাইস, ফিচার ও টেক স্পেসিফিকেশন–

জিএস১৫০আর (GS150R)মটরসাইকেলটি ১৪৯সিসি তে চলে, এর সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন ১৩.৮বিএইচপি পাওয়ার এবং ১৩.৪ এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে পারে। এর  ইঞ্জিনটি ৬ স্পীড গীয়ারবক্স এ হাইওয়েতে ক্রুজিং পারফরমেন্স দেয় চমৎকার আর এটাই এই মটরসাইকেলটিকে অন্যদের তুলনায় অনন্য করে তুলেছে।

জিএস১৫০আর অন্যান্য সাধারন ফিচার গুলোর মধ্যে রয়েছে জিএসএক্স-আর সম্পন্ন ইঞ্জিন, আরপিএম ইন্ডিকেটর লাইট, ইলেক্ট্রিক স্টার্ট, স্টাইলিশ ফাইভ-স্পোক এলোই হুইল, এলইডি টেল ল্যাম্প এবং জিএসএক্স-আর মটরসাইকেলের অনুরুপ ইন্টিগ্রেটেড রিয়ার টার্ন ইন্ডিকেটর সমুহ।

.
মটরসাইকেলটি ৩টি রঙের  পাওয়া যাচ্ছে, পার্ল  মিরেজ হোয়াইট, ক্যান্ডি অ্যান্টেস রেড এবং গ্লাস স্পার্কাল ব্ল্যাক। ১৫০সিসি সেগমেন্টে জিএস১৫০ আর বাইকটিকে ইয়ামাহা এফজেড-১৬ (Yamaha FZ-16) এবং হোন্ডা সিবি টাইগার (Honda CB Trigger) এর সাথে চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হচ্ছে।

সুজুকি মোটরসাইকেল দাম:জিএস১৫০

বাংলাদেশে সুজুকি জিএস১৫০আর মটএসাইকেলটির দাম ১,৯৯,৯৫০ টাকা।

ডিজাইন এবং স্টাইল

জিএস১৫০আর মোটরসাইকেলটিতে ছোট খাট কিছু পরিবর্তন ব্যতীত এটিতে এর অরিজিনাল ডিজাইন এবং স্টাইলই রয়েছে। নতুন গ্রাফিক্সের সাথে উন্নত কৌল এবং  ভিজর ফিচার রয়েছে।

সুজুকি বাইকের দাম

কৌল (cowl) থাকার কারনে হেডলাইটের সাথে বাইকটিকে বেশ সুন্দর দেখায়। এর হেডলাইটের উভয়পাশে এয়ার- ইনটেকস আছে যা বাইকটিকে একটি এয়ারোডাইনামিক লুক দিয়েছে। বাইকটির জোড়া পাইলট  ল্যাম্পের সাথে প্রশস্ত হেডলাইট সহজেই আপনার মনোযোগ আকর্ষণে সক্ষম।

সুজুকি জিক্সার এসএফ রিভিউ

এর আংশিক কালো রঙের ফ্রন্ট ফেন্ডারকেও কিছুটা উন্নীত করা হয়েছে এবং এর স্টাইলিশ  ফাইভ স্পোক এলোই হুইলসও দারুন। এর সাইড প্যানেল, ইঞ্জিন, এলোই হুইল এবং মাফলারকে কালো ফিনিশিং দেয়া হয়েছে।

জিএস১৫০আর মটএসাইকেলটির  ক্রোম হিট শীল্ড এর সাথে আপ-সুইপ্ট সাইলেন্সার একে চরম মাত্রায় স্পোর্টই লুক দিয়েছে। বাইকটির আরো একটি ফিচার হল নতুন গ্রাফিক্স সমৃদ্ধ আপরাইজিং ফুয়েল ট্যাঙ্ক এবং স্টেপড আপ সীট আর লম্বা পজিশনের রীয়ার কৌল এর কারনে ক্লাসি লুক পেয়েছে।

রীয়ার কৌলের বৈশিষ্ট্য হল এর ইনটিগ্রেটেড ক্লিয়ার লেন্স এবং এলইডি টেল লাইট। এটির একটি দুই স্তরের টেল ল্যাম্প আছে জেটা রুপালি ফিনিসের কমপ্যাক্ট গ্র্যাব রেল এ খুব উজ্জ্বল দেখায়।

এর তীক্ষ্ণ রীয়ার ফেন্ডার পেছনের টায়ারকে ঢেকে রাখে একই সাথে নাম্বার প্লেট এবং রিফলেক্টর লাইটও ক্যারি করে।

ইন্সট্রুমেন্ট কনসোল

সুজুকি জিএস১৫০আর টিতে একটি কমবাইন্ড এনালগ ডিজিটাল মিটার কনসোল রয়েছে। বাইকটির এনালগ টেকোমিটারের জন্য একটি সারকুলার ডায়াল আছে যেটা একটি সিলভার রিং দিয়ে ঘেরা রয়েছে।

এটির একটি ডিজিটাল গীয়ার সিফট ইনডিকেটরও আছে। এর ডিজিটাল স্পিডোমিটার, ট্রিপ মিটার, ওডোমিটার, এবং ফুয়েল গেজের জন্য একটি কমলা রঙের বড় এলসিডি রয়েছে। এই স্পিডোমিটারটি ডুয়াল মোডের।

অন্যান্য জরুরী ইন্ডিকেটর গুলোকে এলসিডি্র চারপাশে সাজানো রয়েছে।

ইঞ্জিন এবং গীয়ারবক্স

এই বিভাগে কোন পরিবর্তন আনা হয় নাই। সুজুকি জিএস১৫০আর মোটরসাইকেলটি এখুনো ৪-স্ট্রোক ১৫০সিসি ইঞ্জিনে চলছে। এই এসওএইচসি ইঞ্জিনটি ৮৫০০আরপিএম এ সরবোচ্চ ১৩.৮বিএইচপি পাওয়ার জেনারেট করতে পারে।

এই এয়ার-কুলড ইঞ্জিনের সরবোচ্চ ১৩.৮ এনএম টর্ক প্রোডাকশন করতে পারে যা সহজেই ৬০০০এরপিএম হতে পারে। জিএস১৫০আর প্রথম মটরসাইকেল যেটিতে সিক্স স্পিড ম্যানুয়াল গীয়ারবক্স ফিচার আছে। এর একটি গিয়ার ডাউন এবং পাচটি গীয়ার আপ-সিফট প্যাটার্ন এ রয়েছে।

এক্সেলারেশন এবং পারফরমেন্স

ইঞ্জিনের সরবোচ্চ ভালো ফল পেতে বাইকটিকে বেশ জোরে সোরেই স্টেপ আপ করতে হবে এবং এটি একদম প্রথম মুভেই ক্লিয়ার ফর্ম পেয়ে যায়। সিক্স স্পিড গীয়ারবক্স আপনাকে বাইকটি খুব দ্রুত গতিতে চালাতে সাহায্য করবে।

প্রতিদ্বন্দ্বীদের তুলনায় বাইকটিতে টর্ক এবং পাওয়ার কিছুটা দেরীতে আসে তবে সুজুকি এটা ইচ্ছাকৃত ভাবেই করেছে। চালানোর মত খুব বেশি পাওয়ার এবং টর্ক নেই বাইকটিতে তাই সুজুকি এর গিয়ার রেশিও শর্ট করেছে যাতে কখনোই পাওয়ার আউট না হয়।

বাইক প্রেমীদের চাহিদা অনুযায়ী এর থ্রটল রেসপন্স কে আরো উন্নীত করার চেষ্টা করা হয়েছে। ওজনের অনুপাতে কম শক্তি থাকার পরেও বাইকটি ০-৬০ কিলোমিটার পার আওয়ার করতে পারে ৬ সেকেন্ডেরও কম সময়ে।

এই ইঞ্জিনটি চমৎকার ভাবে রিফাইন করা যার কারনে ৬০০০ আরপিএম এ বিন্দু পরিমান কাপুনিও বোঝা যায় না। বাইকটি ১২০ কিলোমিটার পার আওয়ার পার করতে পারে আর এই জন্য অবশ্যই এর অতিরিক্ত ৬ষ্ঠ গীয়ার টিকে ধন্যবাদ দিতে হয়।

হাইওয়েতে বাইকটিকে নিয়ে অভারটেকিং সহজ কিন্তু শহরের ট্রাফিকের মধ্যে বাইক প্রেমীদের কাছে কিছুটা বিরক্তির কারন হতে পারে।

প্রয়োজন অনুসারে কোন গীয়ারে মুভ করতে হবে সেটা শেখার প্রয়োজন রয়েছে যার কারনে বাইকপ্রেমীদের বাইকটি চালানো শিখতে কিছুটা সময় লাগতে পারে। অন্যথায় চালককে বার বার গীয়ার সিফট এর ঝামেলা পোহাতে হতে পারে যেটা শহরের ট্রাফিকের মধ্যে খুব বিরক্তিকর।

মাইলেজ

সিটি কন্ডিশনে বার বার গীয়ার সিফট এবং ভারী ওজনের কারনে প্রায় ৫০ কিলোমিটার পার লিটার ফুয়েল সাশ্রয় হয়। তবে হাইওয়েতে এই অংকটা ৩-৫ কিলোমিটার পার লিটার এ বেড়ে যেতে পারে।

কমফোরট হোয়াইল ড্রাইভিং

বাইকটির ফুট পেগস মধ্যবর্তী যায়গায় দেয়া আছে যেটা বাইক প্রেমীদের নিশ্চিত ভাবেই স্পোর্টই রাইডিং এর ভঙ্গী এনে দেবে। এর হ্যান্ডেল বারও কিছুটা উপরের দিকে থাকায় চালকের জন্য আরো সুবিধাজনক।

সুজুকি জিএস১৫০আর মোটরসাইকেলটিতে সিটিং খুবি আরামদায়ক এবং এর ফুয়েল ট্যাংকের পাশে পায়ের অবস্থানও পারফেক্ট। হ্যান্ডেল বারটি ভাইব্রেশন লেস ফার্ম পাম গ্রিপ দেয় এবং প্লাস্টিক বাটন ও ইঞ্জিন বন্ধের সুইচ এর কোয়ালিটি বেশ ভালো উন্নত মানের।

Specifications

Displacement 149.5 cc
No. of Cylinders 1
No. of Gears 6
Maximum Power 13.8 Bhp @ 8500 rpm
Maximum Torque 13.4 Nm @ 6000 rpm
Seat Height 790 mm
Ground Clearance 160. mm
Kerb/Wet Weight 149 kg
Fuel Tank Capacity 15.50 litres
Top Speed 118 kmph

স্টোরেজ স্পেস এবং সেফটি ফিচার

জিএস১৫০আর মটএসাইকেলটিতে বলতে গেলে তেমন কোন স্টোরেজ স্পেস নেই, তবে রিয়ার সেরি গার্ড, ফ্রন্ট লেগ এবং পাওয়ারফুল হেডলাইটের মত সেফটি ফিচার রয়েছে।

সাসপেন্সান এবং ব্রেকস

জিএস১৫০আর এ রয়েছে ২৪০ মিলি মিটারের স্ট্যান্ডার্ড মানের ফ্রন্ট ডিস্ক ব্রেক এবং ১৩০ মিলি মিটারের রিয়ার ড্রাম ব্রেক

রাইড এবং হ্যান্ডেলিং

সুজুকি জিএস১৫০আর অনেকটা ভারি বাইক এবং এটা হ্যন্ডেলিং এর সময় বিশেষ করে শহরের ট্রাফিকে সেটা বেশ স্পষ্টই বোঝা যায়। বাইকটি খুব দ্রুত এবং ক্ষীপ্রগতির নয় এবং চালানোতেও কিছু বেশি সময় নেয়।

তবে যায়হোক এর হাই স্পীড স্ট্যাবিলিটি সত্যিই চিত্তাকর্ষক, আর এর জন্য ধন্যবাদ দিতে হয় এর ১৩৩৫ মিলি মিটারের হুইলবেজকে। এর একটি ১৬০ মিলি মিটারের গ্রাউন্ডস ক্লিয়ারেন্স আছে যেটা বেশির ভাগ বাধায় সহজেই অতিক্রম করে ফেলতে পারে।

গ্যাস ফিল্ড রিয়ার সাসপেনশন বাইক প্রেমীদের আরামপ্রদ রাইডিং দেবে এবং বিরক্তি জাগাতে পারে এমন ঝাকুনিও খুব কম অনুভূত হবে।

তবে আরোহীরা টারনিং এর সময় স্ট্যাবিলিটি কিছুটা কম থাকায় তীক্ষ্ণ বাক গুলোতে কনফিডেন্ট ফিল নাও করতে পারেন। যেহেতু বাইকটিতে এখুনো ফার্ম রোড গ্রিপ নেই, তাই বাইক প্রেমীরা সুজুকির কাছে প্রসস্ততর রিয়ার টায়ার কামনা করতে পারে।

যায়হোক এটি হাইওয়েতে ভালোয় চলবে বলে মনে হচ্ছে আর এবার এর জন্য ধন্যবাদ দিচ্ছি এর ভারি ওজন এবং ইফেক্টিভ সাসপেনশন সিস্টেমকে।

 

Comments

comments

Join the discussion

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।