১৫,000 টাকা বাজেটের মাঝে সেরা ৫ স্মার্টফোন

আমরা  ১৫,000 টাকা বাজেটের মাঝে সেরা ৫ স্মার্টফোন এর  সুবিধা , অসুবিধা এবং বৈশিষ্ট্য নিয়ে আলোচনা  করব  আজকে  ১৫,000  টাকা বাজেটের মাঝে সেরা ৫ স্মার্টফোন আপনাদের মাঝে তুলে ধরবো।

আপনি আরো পড়তে পারেন ১৪,৯৯০ টাকা বাজেটের মাঝে সেরা ৫ স্মার্টফোন 

১৫,000 টাকা বাজেটের মাঝে সেরা ৫ স্মার্টফোন :

সিম্ফনি এক্সপ্লোরার জেডভি প্রো

symphony-xplorer-zv-pro-phone-specifications-price

সুবিধাসমূহঃ

  • হাই কোয়ালিটি ক্যামেরা।
  • অধিক শক্তি সম্পন্ন প্রসেসর।
  • র‍্যাম তুলনাধিক বেশি।
  • রম তুলনাধিক বেশি।
  • অধিক সেন্সরের ব্যাবহার।
  • ৬.৫ মিলিমিটার চিকন।
  • ডিস্প্লের কর্ণারে গোরিলা গ্লাস আছে।
  • হাই কোয়ালিটি ভিডিও সাপোর্টেড।
  • ওটিজি সাপোর্টেড।

অসুবিধাসমূহঃ

  • ব্যাটারি ব্যাকআপ তেমন ভালো নয়।

গত বছরের সেপেটেম্বর মাসে রিলিজ হওয়া এই স্মার্টফোনটি এক্সপ্লোরার জেডভির সংকোলন ভার্সন। অল্প সময়েই সিম্ফনির জেডভি ভার্সন ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে এবং কিছুটা ইম্প্রোভমেন্ট করে পরবর্তি সময়ে সিম্ফনি জেডভি প্রো বাজারে আনে সিম্ফনি।

স্মার্টফোনটি শুধুমাত্র কালো রঙেই বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। এর প্রসেসর অক্টা কোর ১.৪ গিগা হার্টজ এবং গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট মালি ৪৫০ এমপি৪।

এর ক্যামেরা ফেক্টরস এর মাঝে রয়েছে অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, ৪ গুণ জোম, এইচডিআর, ফেইস বিউটি, পানোরামা মোড, লাইভ ফটোস, স্মাইল শট, ভয়েস ক্যাপচার, ভি – সাইন শট ইত্যাদি।

এতে জি – সেন্সর, লাইট, এক্সিলেরোমিটার, প্রক্সিমিটি, হল সেন্সটর, ম্যাগনেটিক সেন্সর, কমপাস এবং গাইরোস্কোপ সেন্সর ব্যাবহৃত হয়েছে। স্মার্টফোনটির অন্যান্য ফিচারস এর মাঝে রয়েছে ব্লুটুথ, জিপিএস, এ- জিপিএস, এমপি ৩, এমপি ৪, রেডিও, জিপিআরএস, লাউডস্পীকার এবং মাল্টিটাচ।

ডিসপ্লেঃ

এর ডিসপ্লে সাইজ ৫ ইঞ্চি এবং রেজ্যুলেশন এইচডি ৭২০×১২৮০ পিক্সেল। এতে আমোএলইডি টাচস্ক্রিন ধরণের ডিসপ্লে ব্যাবহার করা হয়েছে এবং ডিসপ্লের কর্ণারে গোরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন রয়েছে।

ডিজাইনঃ

এর বডি সাইজ ১৪৫ × ৭১.৫ এবং এর ওজন ১২০ গ্রাম। এটি ৬.৫ মিলিমিটার চিকন যা সত্যিই অনেক স্লিম। আর এর লুক অনেকটা সাধারণ।

ক্যামেরাঃ

এর সামনের ক্যামেরার রেজ্যুলেশন ৫ মেগা পিক্সেল এবং পিছনের ক্যামেরার রেজ্যুলেশন ১৩ মেগা পিক্সেল। হাই রেজ্যুলেশনের ক্যামেরা এবং অনেক ক্যামেরার ফিচারস থাকার কারণে অসাধারণ ফটোগ্রাফি করা সম্ভব।

ব্যাটারিঃ

এর ব্যাটারি লিথিয়াম – পলিমের ২৩০০ মেগা এম্পায়ারের। এর স্ট্যান্ড – বাই টাইম ২৭৫ ঘন্টা এবং টক টাইম ১০ ঘন্টা।

Symphony Xplorer ZV Pro  Specifications

Battery: Lithium-polymer 2300 mAh

Weight: 120 grams

Display: 5.0 inches

Camera: front 5 MP, back 13 MP

Storage: ram 2GB & rom 16GB

SD card Slot: Yes, Up to 32 GB

Android Version: Lollipop v5.1

স্মার্টফোনটির বর্তমান বাজার মূল্যঃ ১১৯৯০ টাকা

এই স্মার্টফোনটির কিছু স্পেশাল ফিচারস রয়েছে। এতে ইমারজেন্সী রেস্কু মোড রয়েছে। এছাড়া পকেটে থাকা অবস্থায় ডায়াল রোখার জন্য রয়েছে প্রিভেন্ট পকেট ডায়াল।

স্মার্টফোনটি সকল ধরণের হাই কোয়ালিটি ভিডিও সাপোর্ট করে। শক্তিশালী এবং উন্নত মানের প্রসেসর এবং র‍্যাম আপনাকে এইচডি গেইম উপভোগ করতে সহায়তা করবে।

স্মার্টফোনটি খুবই চিকন এবং হালকা। সর্বোপরী স্মার্টফোনটি আপনাকে এই স্বল্প দামে অনেক প্রিমিয়াম সেবা দিতে সক্ষম সুতরাং চাইলে স্মার্টফোনটি কিনতে পারেন।

 

এইচটিসি ডিজাইয়ার ৬২০জি ডুয়েল সিম (hTc desire 620g dual sim)

htc desire 620g dual sim-productreviewbd

সুবিধাসমূহঃ

  • বড় ডিসপ্লে।
  • ভাল সাউন্ড কোয়ালিট।
  • শক্তিশালী প্রসেসর।
  • ভাল মানের ক্যামেরা।
  • হাই কোয়ালিটি গ্রাফিক্স সাপোর্টেড।
  • অসাধারণ ডিজাইন।

অসুবিধাসমূহঃ

  • অপারেটিং সিস্টেম অনেক পুরাতন।
  • তেমন সেন্সর ব্যাবহার করা হয় নি।
  • গোরিলা গ্লাস নেই।

 

স্মার্টফোনটি ২০১৪ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রথম বাজারে আসে। ২ বছর আগে স্মার্টফোনটি রিলিজ হলেও এর ফিচারস এবং স্পেশিফিকেশন এখনো বর্তমান বাজারের এই বাজেটের মাঝে যে কোন স্মার্টফোনের সাথে টক্কর নিতে সক্ষম।

স্মার্টফোনটি সাদা এবং কালো এই দুইটি রঙে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। এতে রয়েছে শক্তিশালী চিপসেট এবং ওক্টা কোর ১.৭ গিগা হার্টজ কর্টেক্স – এ৭ প্রসেসর ব্যাবহৃত হয়েছে। এর গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট মালি ৪৫০ এমপি৪। স্মার্টফোনটিতে এক্সিলেরোমিটার এবং প্রক্সিমিটি সেন্সর ব্যাবহার করা হয়েছে।

এটিতে দুইটি মাইক্রো সিম এক সাথে ব্যাবহার করা যাবে। এর অন্যান্য ফিচারস এর মাঝে আছে ব্লুটুথ, জিপিএস, এ- জিপিএস, এমপি ৩, এমপি ৪, রেডিও, জিপিআরএস, লাউডস্পীকার, এনএফসি এবং মাল্টিটাচ।

htc desire 620g dual sim-sim-slot

ডিসপ্লেঃ

এতে ৫ ইঞ্চি টাচ স্ক্রিন ডিসপ্লে ব্যাবহার করা হয়েছে এর ডিসপ্লে রেজ্যুলেশন এইচডি ৭২০ × ১২৮০ পিক্সেল।

ডিজাইনঃ

স্মার্টফোনটির বডি সাইজ ১৫০.১ × ৭২.৭ এবং এর ওজন ১৬০ গ্রাম। এটি ৯.৬মিলিমিটার চিকন। অন্যান্য স্মার্টফোনের তুলনায় এটি একটু বেশি মোটা। তবে এর ডিজাইন সত্যিই অসাধারণ।

ক্যামেরাঃ

এর সামনের ক্যামেরা ৫ মেগা পিক্সেল এবং পিছনের ক্যামেরা ৮ মেগা পিক্সেল। এটি ৩২৬৪ × ২৪৪৮ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ছবি তুলতে সক্ষম।

ব্যাটারিঃ

htc desire 620g dual sim-battery

এর ব্যাটারির ধরণ লিথিয়াম – পলিমার ২১০০ মেগা এম্পায়ারের। এর ব্যাটারি আলাদা করা যায়। এর স্ট্যান্ড – বাই টাইম ৫২৫ ঘন্টা এবং টক – টাইম ১৯ ঘন্টা।

HTC Desire 620G Dual SIM  Specifications

Battery: Lithium-polymer 2100 mAh

Weight: 160 grams

Display: 5.0 inches

Camera: front 5MP , back 8 MP

Storage: ram 1 GB & rom 8 GB

SD card Slot: Yes, Up to 32 GB

Android Version: KitKat v4.4.4

স্মার্টফোনটির বর্তমান বাজার মূল্যঃ ১৩৪৫০ টাকা

এই স্মার্টফোনটি অসাধারণ এবং সেরা ডিজাইনের জন্য বহুল জনপ্রিয়। এছাড়া স্বল্প দামের মাঝে আপনি আরো পাচ্ছেন অসাধারণ সাউন্ড কোয়ালিটি এবং মানসম্মত ক্যামেরা। এটি ফটোগ্রাফী প্রেমিকদের জন্য রিকুমেন্ডেট স্মার্টফোন।

এই স্মার্টফোনটির সব চেয়ে ভাল দিক হলো এটি অনেক দ্রুত কাজ করে এবং কোন ধরণের লেগিং নেই। এই প্রাইসের মাঝে অন্যান্য স্মার্টফোনের তুলনায় এর চার্জ ধারণ ক্ষমতাও অনেক বেশি। হাই কোয়ালিটি গ্রাফিক্সের গেইম খেলতে যারা ইচ্ছুক তাদের জন্য এই স্মার্টফোনটি পারফেক্ট।

সর্বোপরী, এই স্মার্টফোনটি এই প্রাইসের মাঝে অন্যতম একটি সেরা স্মার্টফোন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জে২

samsung-j2-productreviewbd

সুবিধাসমূহঃ

  • দীর্ঘ ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাটারি ব্যাকআপ।
  • ১২৮ জিবি পর্যন্ত এক্সটার্নাল স্টোরেজ ব্যাবহার করা যাবে।
  • হাই কোয়ালিটি গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট।
  • মাল্টিটাস্কিং এর সুবিধা।
  • শক্তিশালী চিপসেট।

অসুবিধাসমূহঃ

  • গোরিলা গ্লাস নেই।
  • তেমন সেন্সর ব্যাবহৃত হয় নি।

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে রিলিজ হওয়া স্যামসাং এর অসাধারণ একটি স্মার্টফোন গ্যালাক্সি যে ২।

স্মার্টফোনোটি সাদা, কালো এবং সোনালি এই তিনটি রঙে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

এর ক্যামেরা ফেক্টরসের মাঝে আছে অটো ফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, অটো ফেইস রিকুগনাইজেশন, ফেইস বিউটি, পানারোমা মোড। এটিতে কোয়াড কোর ১.৩ গিগা হার্টজ কোর্টেক্স – এ৭ প্রসেসর এবং মালি – টি ৭২০ গ্রাফিক্স ব্যাবহার করা হয়েছে।

স্মার্টফোনটির সেন্সরের মাঝে আছে এক্সিলেরোমিটার এবং প্রক্সিমিটি। এর অন্যান্য ফিচারস এর মাঝে আছে ব্লুটুথ, জিপিএস, এ- জিপিএস, এমপি ৩, এমপি ৪, রেডিও, জিপিআরএস, লাউডস্পীকার, জাভা, এইচটিএমএল এবং মাল্টিটাচ।

ডিসপ্লেঃ

এর ডিসপ্লে সাইজ ৪.৭ ইঞ্চি এবং রেজ্যুলেশন ৫৪০ × ৯৬০ পিক্সেল। এর ডিসপ্লের ধরণ সুপার আমোএলইডি টাচস্ক্রিন।

ডিজাইনঃ

এর বডি সাইজ ১৩৬.৫ × ৬৯ এবং ৮.৪ মিলিমিটার চিকন। এর ডিজাইন তেমন একটা আকর্ষনীয় না।

ক্যামেরাঃ

এর সামনের ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল এবং পিছনের ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। এটি ২৫৯২ × ১৯৪৪ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ছবি তুলতে সক্ষম।

ব্যাটারিঃ

এতে লি – আইওন ২০০০ মেগা এম্পায়ারের ব্যাটারি ব্যাবহার করা হয়েছে। যা স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা কমই।

Samsung Galaxy J2  Specifications

Battery: Li-Ion 2000 mAh

Weight: N/A

Display: 4.7 inches

Camera: front 2 MP and back 5 MP

Storage: 1 GB ram & 8 GB rom

SD card Slot: Yes, Up to 128 GB

Android Version: Lollipop v5.1.1

স্মার্টফোনটির বর্তমান বাজার মূল্যঃ ১১৪৯০ টাকা

সুলভমূল্যে এই স্মার্টফোনটি বাজারে ছেড়ে বাংলাদেশের বাজারে ব্যাপক সফলতা পেয়েছে স্যামসাং। বিভিন্ন ধরণের ফিচারস এবং চমৎকার পারফোর্মেন্স এর জন্য স্যামসাং ফ্যানরা এই স্মার্টফোনটির প্রতি আকৃষ্ট হয়েছে।

এছাড়া স্মার্টফোনটি ব্যাবহার করে দারূন গেইমিং অভিজ্ঞতা অর্জন এবং মাল্টিটাস্কিং এর সুবিধা পাওয়া যাবে। এছাড়া এর ব্যাক ক্যামেরাও ফটোগ্রাফির জন্য অসাধারণ।

সব মিলিয়ে, বাংলাদেশের বাজারে এটি ছিল স্যামসাং এর একটি অসাধারণ প্রোডাক্ট।

হুয়াওয়ে ওয়াই৬

HUAWEI-Y6-DUAL-SIM-productreviewbd

সুবিধাসমূহঃ

  • র‍্যাম তুলনাধিক বেশি।
  • হাই কোয়ালিটি সাউন্ড সিস্টেম।
  • বিল্ট ইন স্পীকার।
  • চমৎকার মানসম্মত ক্যামেরা।
  • ৪ জি তে সুপার ফার্স্ট ইন্টারনেট ব্রাউজিং।

অসুবিধাসমূহঃ

  • গোরিলা গ্লাস নেই।
  • সেন্সর অনেক কম।
  • ব্যাটারী স্ট্যান্ডার্ড কম।

গত বছরের অক্টোবর মাসে স্মার্টফোনটি প্রথম বাজারে আসে।

এটি বর্তমানে সাদা এবং কালো এই দুইটি বর্ণে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

ক্যামেরা ফেক্টরস এর মাঝে রয়েছে অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, এফ ২.০। এর প্রসেসর কোয়াড কোর ১.২ গিগাহার্টজ এবং এড্রেনো ৩০৪ গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট।

এতে জি – সেন্সর রয়েছে এবং অন্যান্য ফিচারস এর মাঝে আছে ব্লুটুথ, জিপিএস, এ- জিপিএস, এমপি ৩, এমপি ৪, রেডিও, জিপিআরএস, লাউডস্পীকার এবং মাল্টিটাচ।

ডিসপ্লেঃ

এতে আইপিএস টাচস্ক্রিন ব্যাবহার করা হয়েছে। এর ডিসপ্লে সাইজ ৫ ইঞ্চি এবং ডিসপ্লে রেজ্যুলেশন এইচডি ৭২০ × ১২৮০ পিক্সেল।

ডিজাইনঃ

স্মার্টফোনটির বডি সাইজ ১৪৩.৫ × ৭২.১ এবং ওজন ১২৫ গ্রাম। এটি ৮.৫ মিলিমিটার চিকন।

huwaei-y6-productrebiewbd

ক্যামেরাঃ

এর সামনের ক্যামেরার রেজ্যুলেশন ২ মেগাপিক্সেল এবং পিছনের ক্যামেরার রেজ্যুলেশন ৮ মেগা পিক্সেল।

ব্যাটারিঃ

লিথিয়াম – আইওন ২২০০ মেগাএম্পায়ারের ব্যাটারি স্মার্টফোনটিতে ব্যাবহার করা হয়েছে। এর স্ট্যান্ড – বাই টাইম ৩০০ ঘন্টা এবং টকম টাইম ১১ ঘন্টা।

Huawei Y6  Specifications

Battery: Lithium-ion 2200 mAh

Weight: 125 grams

Display: 5.0 inches

Camera: front 5 MP , back 8 MP

Storage: 2GB ram & 8 GB rom

SD card Slot: Yes, Up to 32 GB

Android Version: Lollipop v5.1

স্মার্টফোনটির বর্তমান বাজার মূল্যঃ ১২,৯৯০ টাকা

সর্বদিক বিবেচনায়, বর্তমান স্মার্টফোন বাজারে স্যামসাং এর পরেই আছে হুয়াওয়ে। এছাড়া বাংলাদেশেও স্মার্টফোন কোম্পানিটি স্বল্প সময়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে।

স্মার্টফোনটিতে হাই কোয়ালিটির গেইম খেলতে গেলে তেমন কোন সমস্যায় পরতে হবে না। ডিজাইন, ফিচারস এবং পার্ফোর্মেন্স বিবেচনা করে আমরা সহজেই এটিকে অসাধারণ একটি স্মার্টফোন বলতে পারি।

লাভা আইরিশ এক্স৮ প্রো

Lava-Iris-X8-Pro-productreviewbd

সুবিধাসমূহঃ

  • ভাল ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাটারি।
  • অসাধারণ ক্যামেরা।
  • বড় ডিসপ্লে।
  • র‍্যাম তুলনাধিক বেশি।
  • রম তুলনাধিক বেশি।
  • হাই কোয়ালিটি এইচডি ভিডিও সাপোর্টেড।
  • চিকন ডিজাইন।

অসুবিধাসমূহঃ

  • গোরিলা গ্লাস নেই।
  • ওটিজি সাপোর্ট করে না।
  • তুলনা অনুযায়ী দ্রুত প্রসেস করার মত সিপিইউ নেই।

 

স্মার্টফনটি গত বছরের নভেম্বরে বাজারে আসে এবং শুধু মাত্র সাদা রঙে এটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

এর প্রসেসর কোয়াড কোর ১.৩ গিগা হার্টজ এবং জিপিইউ সম্পর্কে তেমন তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব হয় নি। তবে প্রসেসরের তুলনায় এতে বেশি র‍্যাম এবং রম ব্যাবহার করা হয়েছে। এর ক্যামেরা ফেক্টরস এর মাঝে রয়েছে অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, ডিজিটাল জোম, ফেইস বিউটি মোড ইত্যাদি।

এতে এক্সিলেরোমিটার, লাইট এবং প্রক্সিমিটি সেন্সর ব্যাবহার করা হয়েছে। একসাথে দুটি সিম এতে ব্যাবহার করা হয়েছে।

স্মার্টফোনটি চিকন এবং যথেষ্ট পাতলা। এর অন্যান্য ফিচারস এর মাঝে আছে ব্লুটুথ, জিপিএস, এ- জিপিএস, এমপি ৩, এমপি ৪, রেডিও, জিপিআরএস, লাউডস্পীকার এবং মাল্টিটাচ।

ডিসপ্লেঃ

এর ডিসপ্লে সাইজ ৫ ইঞ্চি এবং রেজ্যুলেশন ৭২০ × ১২৮০ পিক্সেল। এর ডিপ্লের ধরণ আইপিএস টাচস্ক্রিন।

ডিজাইনঃ

এর বডি সাইজ ১৪১.৬ × ৭০.৮ এবং ৭.৬৫ মিলিমিটার চিকন। স্মার্টফোনটির অসাধারণ ডিজাইন যা আপনাকে অবশ্যই আকৃষ্ট করবে।

ক্যামেরাঃ

এর সামনের ক্যামেরার রেজ্যুলেশন ৫ মেগাপিক্সেল এবং সাথে রয়েছে ফ্ল্যাশ। এর পিছনের ক্যামেরার রেজ্যুলেশন ৮ মেগাপিক্সেল এবং অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, ডিজিটাল জোম, ফেইস বিউটি ইত্যাদি ফিচারস রয়েছে।

ব্যাটারিঃ

লিথিয়াম পলিমের ২৫০০ মেগা এম্পায়ারের ব্যাটারি স্মার্টফোনটিতে ব্যাবহার করা হয়েছে।

Lava Iris X8 Pro  Specifications

Battery: Lithium-polymer 2500 mAh

Weight: N/A

Display: 5.0 inches

Camera: front 5 MP & back 8 MP

Storage: 2 GB ram & 16 GB rom

SD card Slot: Yes, Up to 32 GB

Android Version: Lollipop v5.1

স্মার্টফোনটির বর্তমান বাজার মূল্যঃ ১২,৯৯০ টাকা

লাভা তাদের ফ্যানদের জন্য অসংখ্য ফিচারস সম্পন্ন এই স্মার্টফোনটি চমৎকার ডিজাইনের সাথে বাজারে আনে। আমরা জানি, লাভার স্মার্টফোন মানে অসাধারণ ডিজাইন এবং বাস্তব ছবি তোলার মত শক্তিশালী ক্যামেরা।

হ্যাঁ, এইবারও এর ব্যাতিক্রম হয় নি। এই স্মার্টফোনটিতেও আকৃষ্ট করার মত রয়েছে ডিজাইন এবং ক্যামেরা।

এছাড়া এর সাথে আছে ১৬ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ যা আপনাকে অধিক ডাটা সংরক্ষণ করতে সাহায্য করবে এছাড়া রয়েছে ২ জিবি র‍্যাম। যা দ্ধারা ভালো পার্ফর্মেন্স উপলব্ধি করতে পারবেন।

Comments

comments

Join the discussion

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।