৪ ইঞ্চি iPhone SE স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছে অ্যাপল আইফোন

 অ্যাপল আইফোন তাদের নুতন ৪ ইঞ্চি iPhone SE স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছে সোমবার 21  তারিখ 2016 । এটা হচ্ছে iPhone 6S এবং 6S Plus এর অন্য আর একটি রুপের স্মার্ট ফোন যা iPhone 6S এবং 6S Plus এর চাইতে ছোট আর দামও কম।iPhone বাজারজাতকরনের ভাইস প্রেসিডেন্ট জসওয়াক ক্যালিফোর্নিয়ার প্রধানকার্যালয়ে iPhone SE কে প্রথম উন্মোচন করেন এবং ঘোষণা করেন যে, এটা হচ্ছে এপর্যন্ত সবচেয়ে শক্তিশালী ৪ ইঞ্চি অ্যাপল আইফোন। অল্প বাজেটের গ্রাহকদের কথা মনে রেখেই স্মার্ট ফোনের বাজারে অ্যাপলের মতো বড় কোম্পানির এই মূল্য নির্ভর স্মার্ট ফোন iPhone SE এর প্রবেশ।

iphone5se-design-product-review-bd

iPhone SE টির সব ফিচারই প্রায় iPhone 6S এবং 6S Plus মতো । যেমন একই রকম প্রসেসিং ক্ষমতা আর গ্রাফিক সমৃদ্ধ তবে এটির দাম আর সাইজের দিক থেকে iPhone6S থেকে কম।এখনো জসওয়াক যা বলেননি তা হল iPhone SE টির  SE কি ? iPhone SE টে থাকছে 3D Touch এবং the 6S এর সিগনেচার ফিচার ।.

এখানে iPhone SE এর ভিডিও টি দেখেতে পারবেনঃ

 iPhone SE এর স্টোরেজ প্যাকেজঃ

দুইটি মেমোরি ফিচারে iPhone SE পাওয়া যাবে তা হল ১৬ জিবি আর ৬৪ জিবি যা আসলে iPhone 6S and 6S Plus এর মতো হুবহু এক।

iPhone SE এর মূল্য – ১৬ জিবি মেমোরি- ডলার ৩৯৯

৬৪ জিবি মেমোরি- ডলার ৪৯৯

এছাড়া, ৪৫০ ডলারে আর ৫০০ ডলারে আপনি আপনার ফোনের মেমোরি ১৬ জিবি আর ৩২ জিবি বাড়াতে পারবেন।

উজ্জ্বল ৪ইঞ্চি রেটিনা ডিসপ্লে এর জন্য ফোনটি দেখতে ভীষণ শার্প আর অসাধারণ নুতন ডিজাইনটিতে রয়েছে ষ্টীলের লোগো আর matte-chamfered edges। আর চারটি রঙ্গে পাওয়া যাবে নীচের রঙ গুলোর মতো-

new-iphone-se-by-apple

iPhone SE এর প্রধান বৈশিষ্ট্য

ফোনটিতে থাকছে ১৬ জিবি এবং ৬৪ জিবি মেমোরির সাথে ৪ ইঞ্চি মনিটর, ১২ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা, ৬৪ বিট A9 চিপ প্রসেসসর। এছাড়া, ৪কে ভিডিও আর লাইভ ফটো,হাই ডেফিনেশান ফেইস টাইম ক্যামেরা যার সাথে আছে ফোকাসিং পয়েন্ট রেটিনা ফ্ল্যাশ ।

এছাড়া, Touch ID টিও নিরাপদ আর iPhone SE কে আনলক করাও সহজ এবং নিরাপদ। এটিতে iPhone 6 and 6 Plus এর মতো একই রকম Touch ID fingerprint sensor রয়েছে।

performanse-of-apple-iPhone-SE-smartphone

iPhone SE তে রয়েছে দ্রুত গতির LTE আর WiFi । ব্যাটারির লম্বা আয়ু, নুতন মাইক্রোফোন এবং অ্যাপলের এর নুতন সংযোজন Apple Pay সাপোর্ট । অ্যাপেল জানিয়েছে এর ফুল ব্যাটারির মাধ্যমে এই ফোনটিতে আপনি ১২ ঘণ্টা 3G নেটওয়ার্ক এ আর ১৩ ঘণ্টা LTE তে আর ১৩ ঘণ্টা Wi-Fi তে কাজ করতে পারবেন।

একটি পার্থক্যমুলক তালিকা

performanse-of-iPhone-SE-smartphone

iPhone  SE অ্যাপ

যেসব অ্যাপ রয়েছে iPhone  SE তা হল ম্যাসেজ এবং তা অনেকগুলি ভাবেই আপনি পাঠাতে পারবেন যেমন- টেক্সট, ফটো, ভিডিও, লিঙ্ক আর মিউজিক হিসেবে। এছাড়া, FaceTime   ভিডিও কল করা যাবে অন্য আইফন, আই প্যাড বা Mac এ। সংগীতে আপনার প্রবেশাধিকার থাকেবে অ্যাপেল মিউজিক লাইব্রেরীতে ।এছাড়া আপনি ম্যাপ দিক নির্দেশনা পাবেন spoken facility সহ যাতে আরও থাকবে turn-by-turn navigation, real-time traffic এর খবরাখবর আর Transit view। এছাড়া iPhone  SE টি A9  চিপ আর M9 motion coprocessor  সমৃদ্ধ যা আপনাকে দেবে একছিলোরোমিটার, কম্পাস এমনকি জিস্মগ্রাফ যার মাধ্যমে আপনি আপনার হাটা বা দৌড়ানোর হিসাব রাখতে পারবেন।

যেসব দেশে পাওয়া যাবেঃ

যেসব দেশে নুতন এই iPhone টির অর্ডার নেয়ে শুরু করেছে ২৪ শে মার্চ হতে তারা হল কানাড,চায়না, ফ্রান্স, জার্মানি,হংকং,নিউজিল্যান্ড, পরতু রিকো, সিঙ্গাপুর,ইউকে এবং ইউএস। ফোনটি পাওয়া যাবে ৩১ মার্চ হতে। অ্যাপেল আরও আশাবাদী যে, শিগ্রই তারা ১০০ টির ও বেশী দেশে তাদের এই বিক্রয় ছড়িয়ে দিতে পারবে।

Comments

comments

Join the discussion

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।