গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম -কোনটি বেছে নেবেন আপনি?

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম -কোনটি বেছে নেবেন আপনি?

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম-productreviewbd

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম দাবী করে যে, এটি আপনার ত্বক উজ্জল, মসৃণ ও ময়েসচারাইজ করে। গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম হল এমন একটি ক্রিম যার মধ্যে এমন সব কিছু আছে যা তৎক্ষণাৎ আপনার ত্বককে সুন্দর করে তোলে এবং ত্বকে একদম মিশে গিয়ে ত্বককে মসৃণ করে তোলে।

 

এটি খুব ঘন না তাই ত্বকে খুব ভালোভাবে মিশে যায়। এটাতে ভিটামিন সি আছে যাতে এন্টিঅক্সিডেন্ড উপাদান থাকে আর এর সাথে এর আমন্ড নির্জাস একত্রিত হয়ে ত্বককে ময়েসচারাইজ করে। এর এস পি এফ ২৪ ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি থেকে সুরক্ষা করে। আর এর মূল্যটা ও খুব নাগালের মধ্যে এর পরিমানের তুলনায়।

অন্যদিকে, পন্ডস হোয়াইট বিউটি এমন একটি ক্রিম যা দাবী করে যে, এর রয়েছে অত্যাধুনিক জেন হোয়াইট কভার ফর্মুলা এবং এস পি এফ ৩০পি এ ++ সূর্য রশ্মির সুরক্ষা সমৃদ্ধ। আর ডাক্তারি পরীক্ষায় প্রমাণিত যে , এটা ত্বকের রঙ ফর্সা করে এবং মুখের কালো দাগ কমিয়ে আনে। জেন হোয়াইট ফর্মুলা হল ভিটামিন বি৩, ভিটামিন ই আর এলান্সান এর শক্তিশালী মিশ্রণ যা ত্বকের গুনগত উন্নতি ঘটায় ।

এটা ত্বককে ফর্সা করতে সাহায্য করে। যদিও ব্যক্তিগতভাবে আমি তাদের এই দাবী খুব বেশী পছন্দ করিনা, কারণ ফর্সা ত্বকই শুধু সুন্দর ত্বক তা নয় আমার কাছে । এটা ৫০ গ্রাম আর জারের মূল্য ২৯৯ taka।

সুতারং আমরা দেখতে পাচ্ছি যে , দুটো ক্রিমই শক্তিশালী ভিটামিন আর মিনারেলের সংমিস্রন যা ত্বকের গুনগত মান বৃদ্ধি করে এবং ত্বকের গ্লো বাড়ায়।

এখন আমাদের প্রশ্ন হল গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম এই দুটোর মধ্যে কোনটি বেশী ভাল?

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম—–এর জন্য আমি এই দুটোর সোয়াচ পরীক্ষা করার আর পণ্য দুটি পরীক্ষা করার প্রয়াস নিয়েছিলাম।

garnier vs ponds-bb-cream

আপনারা ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন যে, দুটো ক্রিমের রঙই ব্রাউন আর এই শেড আমাদের উপমহাদেশের মেয়েদের ত্বকের রঙের জন্য উপযুক্ত, যদিও পন্ডস বিবি ক্রিমটি , গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম এর তুলনায় বেশী প্রাকৃতিক রঙের ত্বকের জন্য।

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম

ঘনত্তের তুলনা করলে দেখা যাবে যে, গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম একটু বেশী পানি পানি টাইপের অন্যদিকে পন্ডস বিবি ক্রিমটি বেশ ক্রিমি ধরণের। পন্ডসের ক্রিমটি আপনার ত্বকে বেশী মিশে যাবে আর ভাল কভারেজ দেবে সাথে সাথে অল্প বা ছোট ছোট ত্বকের ফ্লোগুলিকে ঢেকে দেবে যেমন ত্বকের হালকা ভাঁজ বা ব্রাউন দাগ। আর গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম ত্বককে বেশী ময়েসচারাজ করে কারণ এটি ত্বক খুব দ্রুত শুষে নেয় ।

পন্ডস ক্রিমটি আপনাকে বেশী ন্যাচারাল লুক দেবে যেখানে গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম দেবে একটি সাধারণ কভারেজ।

মনোযোগ সহকারে ক্রিম দুটির সোয়াচ গুলি লক্ষ্য করুন নীচে-

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম-swatch

আসুন এবার দেখি চোখের নীচের কালো দাগ বা ডার্ক সার্কেল কভারেজের পরীক্ষা র ক্রিম দুটি কে কোন জায়গায় আছে-

পন্ডস বিবি ক্রিমটি চোখের নীচের কালো দাগ বা ডার্ক সার্কেল কভারেজের বিষয়ে এগিয়ে আছে একধাপ। সঠিক ধারনা নেয়ার জন্য আমি চোখে অন্য কোন মেকআপ ব্যবহার করিনি।

অতএব আমার কি উপসংহার দেওয়া উচিৎ: গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম ?

এটা আসলেই কঠিন, কারণ ত্বকের ধরণ আর সময়ের সাথে সাথে তা পরিবর্তনের জন্য। আমি গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম মিরাকেল স্কিন প্রটেক্টর খুব বেশী সময়ের জন্য ব্যবহার করিনি । তবে যদি তারা এটি তৈরিতে আমন্ড নির্যাস যা ত্বককে খুব ভাল ময়েসচারাজ করে এবং ভিটামিন সি যা ত্বকের সজিবতা ভিতর থেকে ফিরিয়ে আনে এর উপাদান ব্যবহার করে তবে সুদুরপ্রসারিভাবে গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম আপনার ত্বকেকে বেশী ভাল করে তুলবে। আমি ইতিমধ্যে এটাও বলেছি যে, পন্ডস হোয়াইট বিউটিতেও রয়েছে ভিটামিন, বি৩ আর এলান্সান যাতে ত্বকের কন্ডিসানিং উপাদাণ থাকে । সুতারং দুটো ক্রিমই আপনার ত্বককে পুনরায় সজীব করতে সাহায্য করবে।

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম এ আছে এস পি এস ২৪ আর পণ্ডস বিবি ক্রিমে আছে এস পি এফ ৩০ ++ যা খুব বেশী আলাদা নয়।

গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম এর দাম : ৪০ গ্রামের জার ১৯৯ রুপি আর পন্ডসের বিবি ক্রিম এর দাম: ৫০ গ্রামের জারের দাম ২৯৯ রুপি । সুতারং দামেও খুব বেশী পার্থক্য নেই। পন্ডসের জারে পরিমানে বেশী থাকায় দামও একটু বেশী।

ত্বকের কভারেজে দেয়ার ক্ষেত্রে পন্ডস একটু এগিয়ে আছে। গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম ময়েসচারাইজার হিসেবে বেশী কাজ করে । এটা যাদের ত্বকে খুব বেশী দাগ বা ফ্লো নেই বা যাদের ত্বকে খুব বেশী কভারেজের দরকার হয় না , তাদের জন্য বেশী মানানসই।

অন্যদিকে পন্ডস বিবি ক্রিমটি খুব ঘন নয় তবে এটা ত্বককে অনেক বেশী মসৃণ করে আর ত্বকে মিশানোও সহজ

এই বিবি ক্রিম কি আপনাকে আপনার নিয়মিত ফাউন্ডেসান ব্যবহারের বিকল্প হিসেবে কাজ করতে পারে?

এর উত্তরে আমি বলব যে, আপনি যদি ফাউন্ডেসান ও কণসিলার ব্যবহার করতে না চান তবে নিশ্চিতভাবে দিনের বেলার মেকআপের জন্য পন্ডস বিবি একটি ভাল বিকল্প। আর গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম হল একটি নিছক কভারজ আর ময়েসচারাইজার।

বিবি ও সিসি ক্রিম এর পার্থক্য নিয়া আমরা আসছি।

Comments

comments

Join the discussion

2 thoughts on “গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম না পন্ডস বিবি ক্রিম -কোনটি বেছে নেবেন আপনি?

  1. এটা আসলেই কঠিন, কারণ ত্বকের ধরণ আর সময়ের সাথে সাথে তা পরিবর্তনের জন্য। আমি গার্ণীয়ার বিবি ক্রিম মিরাকেল স্কিন প্রটেক্টর খুব বেশী সময়ের জন্য ব্যবহার করিনি । তবে যদি তারা এটি তৈরিতে আমন্ড নির্যাস যা ত্বককে খুব ভাল তার সাথে আমি একমত।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।