নিখুঁত ফাউন্ডেশন কেনার সেরা ৫ টি ফর্মুলা

নিখুঁত ফাউন্ডেশন কেনার সেরা ৫ টি ফর্মুলা

আপনার ত্বক শুষ্ক, তৈলাক্ত অথবা ব্রণপ্রবণ কিনা এটা কোন ব্যাপার না, সর্বোত্তম ফাউন্ডেশন্টি খুঁজে পাওয়াই হল সবথেকে কঠিন।কস্মেটিকসের  দোকান আপনাকে নমুনা দেবে না, এবং আপনি ফাউন্ডেশনটি ঘরে নিয়ে আসার পর দেখবেন আপনার মুখের রং আপনি যেমন ভেবেছিলেন তার কিছুই হবে না। এবং এমনকি আপনি যদি অন্য কোন দোকানেও যান যেগুলো আপনাকে প্রথমে রং পরীক্ষা করে দেখার জন্য দিবে, তবুও আপনার নিশ্চিত হওয়া লাগবে যে আপনি আসলেই আপনার ত্বকের জন্য সঠিক ফর্মূলা বাছাই করছেন কিনা।

তাই নতুন ফাউন্ডেশন কেনার আগে নিখুঁত ফাউন্ডেশন কেনার সেরা ৫ টি ফর্মুলা পড়ুন যেন আপনি নিখুঁত ফর্মূলাটি বাছাই করতে পারেন।

Try new one from here they are selling for you!! :akhoni.com

নিখুঁত ফাউন্ডেশন কেনার সেরা ৫ টি ফর্মুলা

১. এমন একটি ফর্মূলা বাছাই করুন যা আপনার ত্বকের সাথে মানানসই-

বোতলের লেখা দেখে শুধুমাত্র কোন কিছু কিনবেন না- এর ভাষা ভিন্নও হতে পারে। এর পরিবর্তে এমন একটি ফর্মূলা বাঁচাই করুন যা আপনার ত্বকের সাথে খুব ভালভাবে কাজ করবে। আপনার মুখ যদি সচরাচর শুকনা থাকে, তাহলে তরল অথবা শক্ত ফাউন্ডেশন বাছাই করুন কারণ এটি কোমল ও মসৃণ হবে এবং অধিকাংশ ময়েশ্চারাইজিং উপাদানই এর মধ্যে থাকে।

আপনার ত্বক যদি তৈলাক্ত থাকে, তাহলে পাউডার যাবতীয় ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন যা তৈলাক্ত ভাব শুষে নিবে। পাউডারই হল সবথেকে সহজ কারণ আপনি এটিকে শুষ্ক দাগের উপর ভালভাবে মিশাতে পারবেন, এবং তৈলাক্ত ভাব শোষণ করে নিতে এটি খুবই কার্যকর।

২. আপনি কি ধরনের কভারেজ চান তা সিদ্ধান্ত নিন-

 আপনার ব্রণগুলোকে কি ভালবাসেন? এর জন্য গাঢ় কভারেজের ফাউন্ডেশন অথবা রঙিন ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি যদি এয়ারব্রাশের আরও ব্যবহার করতে চান তাহলে মিডিয়াম কভারেজ ব্যবহার করুন এবং আপনি যদি সবকিছুকে ঢেকে ফেলতে চান তাহলে ফুল কভারেজ ব্যবহার করুন।

৩. আপনার ত্বকের আন্ডারটোনগুলো খুঁজে বের করুন-

 এটা কিছুটা জঘন্য, কিন্তু আপনার কব্জির শিরাতে এগুলো পরীক্ষা করতে পারবেন। যদি এগুলো নীলাভ দেখায়, তাহলে আপনার আন্ডারটোন খুবই উষ্ণ আর এগুলো যদি বেশি নীলাভ অথবা বেগুনী দেখায় তাহলে আপনার আন্ডারটোন স্বাভাবিক আছে, এবং এগুলো যদি নীলাভ-সবুজ দেখায়, তাহলে আপনার আন্ডারটোন নিউট্রাল আছে।

এগুলোর কি দরকার? আপনার এমন ফান্ডেশন দরকার যা আপনার ত্বকের খারাপ জায়গাগুলোতে পরিপূরক হিসেবে কাজ করবে। উষ্ণ দাগগুলো হলুদাকৃতির বাঁ পীচাকৃতির শেডগুলোতে খুব ভাল দেখাবে; স্বাভাবিক দাগগুলো গোলাপীকৃতির কালারে খুব ভাল মানাবে; এবং নিউট্রাল টোনগুলো হলুদ শেডগুলোর সাথে খুব ভাল কাজ করবে।

৪. আপনার চোয়ালের রেখার বিপরীতে ফাউন্ডেশনের শেড পরীক্ষা করুন-

 আপনি যদি কোন নমুনা পরীক্ষা করতে সক্ষম হন, তাহলে এটিকে আপনার হাতে নিয়ে পরীক্ষা করবেন না। জানালার বাইরে অথবা পাশে সুর্যের আলোর কাছে যান, এবং ফাউন্ডেশনটি আপনার চোয়ালের রেখায় মাখুন। এর আপনার ত্বকের সাথে মিশে যাওয়ার কথা।

আপনি যদি কাছাকাছি দুই ধরনের রঙের মধ্যে পার্থক্য খুঁজে না পান, তাহলে তাদেরকে সাইড বাই সাইড অনুযায়ী রাখুন, এবং দেখুন কোনটি আপনার ত্বকের সাথে ভালভাবে মিশে যায়।

আপনার ত্বকের জন্য সঠিক ফর্মূলা কোনটি?

যখন কোন ফর্মূলা বাঁচাই করবেন তখন সবথেকে ভাল হবে আপনার ত্বক কি ধরণের তা জানা। ফাউন্ডেশনগুলো তৈলাক্ত, শুষ্ক, বয়স্ক, স্বাভাবিক, সংবেদনশীল ত্বকের জন্য বানানো হয়। মনে রাখবেন, বেশির ভাগ মহিলাদের ত্বকের ধরণই আবহাওয়া অনুযায়ী বদলে যায়।

শীতকালে আপনি সম্ভবত শুষ্ক থাকতে পারেন, আবার গ্রীষ্মকালে আপনার ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যাবে। যদিও অনেক ধরনের মহিলারই কম্বিনেশন ত্বক থাকে, অর্থ্যাৎ এদের শরীরের যে অংশ কাপড় দিয়ে ঢাকা থাকে তা তৈলাক্ত থাকে এবং অন্যন্য যায়গাগুলো শুকনো থাকে।

আপনার ত্বক যদি তৈলাক্ত থাকে, তাহলে যে সব বোতলে “তেল- মুক্ত”, ” তেল- নিয়ন্ত্রণ”, অথবা “ম্যাটিফায়িং” এই ধরণের লেখা আছে ওইগুলো খুঁজুন।

যেসব মহিলাদের ত্বক শুষ্ক তাদের ময়েশ্চারাইজিং ফাউন্ডেশন দরকার। এই জন্য “হাইড্রেটিং” অথবা “ময়েশ্চার-সম্বলিত” লেখার বোতলগুলো খুঁজে বের করতে পারেন। গ্লিসারিন সম্বলিত ফাউন্ডেশনগুলো খুব সহজেই পিছলিয়ে আসে।

কম্বিনেশন ত্বকের জন্য, নির্ধারণ করুন আপনার ত্বক বেশি তৈলাক্ত অথবা শুষ্ক কিনা এবং এই অনুযায়ী অগ্রসর হোন। ক্রীম-টু-পাউডার ভিত্তিক ফাউন্ডেশনগুলো কম্বিনেশন ত্বকের জন্য খুব ভাল কাজ করবে। মিনারেল ফাউন্ডেশনগুলো সব ধরনের ত্বকের জন্যই ভাল কাজ করে, বিশেষ করে সেনসিটিভ ত্বকের জন্য।

বয়স্ক ত্বকের মানুষেরা তাদের জন্য যে ধরনের ফাউন্ডেশন আছে তা থেকেই বেশি উপকৃত হবে।  এইজন্য আমার বয়স্কদের ত্বকের জন্য সর্বোত্তম ফাউন্ডেশনের সংকলিত তালিকাটি দেখতে পারেন।

Comments

comments

Join the discussion

One thought on “নিখুঁত ফাউন্ডেশন কেনার সেরা ৫ টি ফর্মুলা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।