মেয়েদের বাইক কেনার দিক নির্দেশনা

আমাদের দেশের রাস্তা বা ফুটপাথ এখনও মেয়েদের বাইক চালানোর মতো তেমন উপযুক্ত নয়। ফুটপাথ গুলিতে অনেক বেশী ভিড় আর আর চারিদিকের পরিবেশও তেমন নারী বান্ধব নয়। তাই আমাদের এই মেয়েদের বাইক কেনার দিক নির্দেশনায় আমরা কিছু সমস্যা খুজে বের করে সেগুলি কিভাবে জয় করে একটি মেয়ে একটি ভাল বাইক কিনে তা ভালোভাবে চালাতে পারবেন তা বলার চেষ্টা করেছি।

সাইকেলিং সব সময় একটি ভাল ব্যায়াম। কিন্তু, সাইকেল কেনার সময় ছেলেদের তুলনায় মেয়েদেরকে অনেক ধরণের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয় । সাধারনত সাইকেল প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলি ছেলেদের শারীরিক গঠনের কথা মনে রেখেই সাইকেল তৈরি করে। তাই, মেয়েদেরকে তাদের শরীরের সাথে উপযুক্ত সাইকেল কিনতে ভীষণ বেগ পেতে হয়।

product-review-bd-women-bike-choose

আনুপাতিক হারে মেয়েদের পাগুলি বেশী লম্বা আর ধড় বা শরীর ছোট একিই উচ্চতার কোন ছেলের তুলনায়। আর এজন্য, আপনাকে মানে মেয়েদেরকে তার শরীরের গঠনের সাথে চলনসই যেসব সাইকেল ডিজাইন করা হয়েছে তা খুঁজে বের করতে হবে। হয় বাইকের ডিজাইনটি হবে এমন যা ছেলে বা মেয়ে উভয়ের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে অথবা সুধুমাত্র মেয়েদের জন্য বানানো হয়েছে।

আসুন, মেয়েদের সাইকেলের আসল কথায়। যেসব সাইকেল মেয়েদের জন্য ডিজাইন করা হয় সেগুলির টপ টিউবগুলি তুলনামুলকভাবে ছোট থাকে আর হ্যান্ডলবার গুলি সরু থাকে । আর এর বসার গদি গুলিও মেয়েদের বসার জন্য উপযুক্তভাবে আলাদা হয় ।

women-bike-choose

অবশ্যই আপনি  নারী-নির্দিষ্ট ডিজাইন বাইক কিনবেন কিছু কিছু বাইক সপে মেয়েদের জন্য ডিজাইন করা সাইকেল থাকে যা মেয়েদের শারীরিক আকৃতি ও গঠনের সাথে যুতসই।

women-bike-choose-angle-view-product-review-bd

সাইকেল কেনার সময় কিভাবে আপনি মেয়েদের বসার জন্য আরামদায়ক গদি বা সিট খুঁজে বের করবেন- যেকোনো বাহনে যদি আপনি বসে আরাম না পান তবে তা চালিয়েও শান্তি পাবেন না। মেয়েরা যখনি সাইকেল কিনতে যান বা সাইকেল চালান বেশীরভাগ অভিযোগ করেন যে সিটটি অসাড় , নয়তো বসলে ব্যথা লাগে কিম্বা বসে আরাপ পাচ্ছেন না।

একটি আরামদায়ক উপযুক্ত সিটের কারণ আপনার সাইকেলিং হবে আনন্দময়।তাই সাইকেল কেনার সময় কয়েকটি সাইকেলে বসে আপনি পরীক্ষা করে দেখবেন কোনটিতে আপনি আরাম পাচ্ছেন। মেয়েদের জন্য ছেলেদের তুলনায় একটু চওড়া সিট লাগে কারণ মেয়েদের হিপ ছেলেদের তুলনায় একটু চওড়া আর শরীরের অন্যান্য কিছু গঠনও আলাদা।

নীচের ছবিতে দেখুন মেয়েদের শ্রোণীচক্র এর গঠন, প্রধান হাড়গুলি পিছনের দিকে চওড়া আর সামনের দিকে সরু। এই শ্রোণীচক্র এর গঠনের কথা মাথায় রেখেই মেয়েরা আপনারা আপনাদের সাইকেলের সিট দেখে নিবেন যাতে আরামদায়ক হয়। ।

how-to-get-the-right-saddle-for-women-bike

হ্যান্ডলবারের কতোটা চওড়া তা পরীক্ষা করুন- আমরা আমাদের সাইকেল রিভিউতে দেখেছি যে, ছেলেদের বাইকের হ্যান্ডল বারের সাধারণত ৪০-৪২ সেমি. লম্বা হয় । কিন্তু, এই লেংনথ অধিকাংশ একটি মেয়ের জন্য একটু বেশীই । আর সেজন্য মেয়েরা সাইকেল কিনতে গেলে দেখবেন হ্যান্ডলবারের লেংনথ যেন ৩৬ থেকে ৩৮ সেমি. এর ভিতরে হয় যাতে আপনার সাইকেল চালানোটি আপনার কন্ট্রোলে থাকে এবং একিই সাথে শান্তিদায়ক হয় । তাই সঠিক হ্যান্ডলবারের সূত্র হল আপনার ঘাড় যতো কম চওড়া হবে আপনার সাইকেলের হ্যান্ডল বারও তত সরু বা ছোট হবে।

অনেক সাইকেলে হ্যান্ডল বারের পরীক্ষা করে দেখবেন ।

একটি দোকানে নয় কাছে দূরে সব দোকানেই খুঁজে খুঁজে দেখবেন। সাইকেলের সিট আর হ্যান্ডল বারের এর মধ্যকার দূরত্ব ভালোভাবে পরীক্ষা করুন। বলা হয় যে, মেয়েদের সাইকেল পছন্দের সময় তাদের উচ্চতা এবং হাতের আকৃতি বিষয়গুলি মনে রাখতে হবে। যদি কোন মেয়ে সাইকেলের সিটের উপরে বসে সহজেই হ্যান্ডল বারের ধরতে এবং চালাতে পারে তবে সেটাই তার জন্য উপযুক্ত । চালকের বাহু দুটি একটু বাঁকানো থাকবে যদি আপনার হ্যান্ডল বারের আর সিটের দূরত্ব সঠিক মাত্রায় থাকে ।

WSD-Standard-Vert

 

গিয়ার এবং ব্রেক পরীক্ষা করুন

অনেক মেয়েই অভিযোগ করেন যে তাদের সাইকেলের গিয়ারটি তাদের হাতের তুলনায় বেশী বড়। তাই নিজের সাইকেল কেনার সময় যেকোনো মেয়েকেই নিশ্চিত হতে হবে যে, সিটে বসে তিনি যেন নিরাপদে ব্রেক এ ট্রিগার করতে পারেন এবং কোন ধরণের চাপ ছাড়াই সব গিয়ারে কন্ট্রোল করতে পারে। কত উচ্চতায় সিটটি থাকবে-যেকোনো মেয়েকেই তার নিজের উচ্চতা আর আকৃতির উপর ভিত্তি করে তা ঠিক করতে হবে। সিটটি এমন উচ্চতায় থাকবে যাতে চালকের পা প্যাডেলটি সর্বনিম্ন অবস্থানে থাকা অবস্থায় চালকের হাঁটুটি সামান্য বাঁকানো থাকে। সিটটি খুব উপরে থাকলে প্যাডেল এ চাপ দিতে অসুবিধা হবে আবার চালকের হিপেও ব্যথা হতে পারে।

women-bike-to-determine-seat-height

হালকা ধরণের এবং সহজে বহনযোগ্য সাইকেল এমন কিছু সাইকেল আছে যা আপনি সহজেই ভাঁজ করতে পারবেন আর আপনার গাড়ির পিছনে নিয়ে ট্র্যাভেল করতে পারবেন। আবার এগুলি আপনি একটু আঁকাবাঁকা খারাপ রাস্তায়ও চালাতে পারবেন ।

এটা কিন্তু ঠিক যে খুব ভারী সাইকেলগুলি খুব ভাল হয়না। তবে, এর বাইরেও অনেক ভাল মন্দ আছে। এটা বলার কারণ হল মেয়েদের সাইকেলটি খুব ভারী না হলেই এটা নিয়ে সহজে ও নিরাপদে চলাফেরা করা যায়।

ফ্রেম সাইজ এর সুত্র যা আপনার কাজে লাগবেঃ

মেয়েদের সাইকেল কেনার নির্দেশনায় পৃথিবী জুড়েই বলা হয় যে, যাদের উচ্চতা ৫ ফিট ৫ইঞ্চির কম তাদের ছোট সাইজের সাইকেল পছন্দ করা উচিৎ।

সঠিক ফ্রেম সাইজ বাছাই করা আসলেই কষ্টসাধ্য । কারণ মডেল এবং প্রস্তুতকারকের ভিন্নতার কারনে ফ্রেম সাইজও ভিন্ন হয়। কিছু সাইকেল সপ আছে যেমন CycleLife.Exclusive এবং LionCycle যারা স্বাধীন ডিলার এবং সাইকেল ফিটিং আপনাকে এর সর্বোচ্চ সাহায্য করতে পারে।

সাইকেল সাইজ এর তালিকা –

সাইকেল কেনার চূড়ান্ত সিদান্ত নেয়ার আগে যেকোনো মেয়েকেই তার আরাম এবং নিরাপত্তার জন্য সাইকেল ভালভাবে পরীক্ষা করে দেখতে হবে। চালিয়ে দেখতে হবে।

আসুন আমারা এবার সাইজের গাইডলাইনটি দেখে নেই

রাস্তায় চালানোর সাইকেলের সাইজের তালিকা-মেয়েদের সাইকেল চালকের উচ্চতা যে সাইজ ফ্রেমটি প্রয়োজন

women-road-bike-size-guide-product-review-bd

 

পাহাড়ী একালায় চালানোর সাইকেলের সাইজের তালিকা-

মেয়েদের সাইকেল চালকের উচ্চতা যে সাইজ ফ্রেমটি প্রয়োজন

 

women-mountain-bike-size-guide-product-review-bd

 হাইব্রিড বা মিশ্র ধরণের সাইকেলের সাইজের তালিকা- মেয়েদের হাইব্রিড সাইকেল

চালকের উচ্চতা যে সাইজ ফ্রেমটি প্রয়োজন

women-hybrid-bike-size-guide-product-review-bd

আপনি যে ধরনের বাইকই কিনবেন না কেন সবসময় এটির এডাপ্তটিলিটি টা ভালভাবে দেখবেন। বর্তমানে সাইকেল প্রস্তুতকারকরা তাদের বাইক গুলিতে অনেক বৈচিত্রময় বৈশিষ্ট্য নিয়ে ক্রেতাদের সামনে হাজির হচ্ছে।

বাইকের নিরাপত্তা

১। বাইক চালিনর সময় আপনাকে অবশ্যই রাস্তা এবং অন্যান্য চলাচলকারীর প্রতি মনোযোগ দিতে হবে। একই সাথে চোখ রাখতে হবে অন্যান্য বাইক চালক, মোটর সাইকেল চালক, গাড়ী, ফুটপাথে চলাচলকারী , তাদের পোষা প্রাণী আর রাস্তার যেসন বাচ্চা চলাচল করছে তাদের প্রতি।

২।রাস্তার অন্যান্য যানবাহনের দিকে সতর্ক থাকুন। এমনভাবে আপনার বাইক চালাবেন না যাতে তা কোন যানবাহনের আড়ালে পড়ে আর আপনাকে দেখা না যায়। বড় যানবাহনের ভীড়ের মধ্যে আপনার ছোট বাইক নিয়ে যাবেন না।

৩। সবসময় রাস্তার আর সাইকেলিং এর নিয়ম মেনে চলুন।

৪। আপনার এবং রাস্তার নিরাপত্তার জন্য লাইট জ্বালিয়ে রাখুন। এমনকি দিনের বেলাতেও।

৫। কোথাও থামিয়ে রেখে গেলে তালা দিতে ভুলবেন না ।

৬। বাইকে নেয়া যায় এমন সব জিনিসপত্র বাইকে নিবেন অন্য গুলো নয়।বাইক চালানো বিষয়ক নীচের ছবি গুলি দেখুন আপনার কাজে লাগবে-

মেয়ে বাইক চালক্রা প্রায় অন্যদের দিয়ে যৌন হয়রানির এবং মানসিক হয়রানির শিকার হন। গবেষণায় দেখা গেছে যে, ১৩% মেয়ে চালককে রাস্তার অন্যান্য চালক বা পথচারী অযথাই ধাক্কা মারে যা আসলেই ভাবার মতো বিষয়। তাই মেয়ে চালকদের অবশ্যই অনেক সর্তক হতে হবে।

bike-safety-for-women

হেলমেট এর সঠিক ব্যবহারঃ

অবশ্যই নারী বান্ধব হেলমেট কিনবেন। যেটা আপনার জন্য ফিট আর নিরাপদ সেটাই নিবেন । নীচের ছবিতে দেখুন কিভাবে সঠিকভাবে হেলমেট ব্যবহার করবেন সবশেষ কথা হলে আপনি যদি মেয়ে হন আর সাইকেল চালাতে চান তবে তবে আপনার ইচ্ছা শক্তিই আপনাকে তা সহজভাবে করতে সাহায্য করবেন। অন্য কোন বাজে ব্যাপারের জন্য নিজের ইচ্ছাকে জলাঞ্জলি দেবেন না ।মেয়েদের জন্য বাই সাইকেল কেনাটা একটি ইমোসানাল সিদ্ধান্ত। আপনি যেখান থেকেই আপনার বাইকটি কিনেন না কেন হতে পারে আপনার কাছে বা দূরের কোন দোকান বা অনলাইন সপ কিন্তু সবচেয়ে জরুরী যা তা হল বাইকটির প্রতি আপনার ভালবাসা ।

how-to-correct-helmet-for-women

আপনার সাথে মানানসই আর উপযুক্ত বাইক নিয়ে আপনি অনেক বেশী সময় আর নিরাপদে আপনার বাইকটি ব্যবহার করতে পারবেন । নুতন বাইক কেনার সময় আপনার আকৃতি ও গঠনের সাথে উপযুক্ত আর আরামদায়ক সিটের বিষয়টি অবশ্যই নিশ্চিত হবে। সকল মেয়ে বাইক চালকদের জন্য আমাদের শুভকামনা ।

Comments

comments

Join the discussion

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।