ডাবর আমলা হেয়ার অয়েল- রিভিউ

দক্ষিন এশিয়ায় ১০০ বছরেরও বেশী সময় ধরে চুলের যত্নে আমলা তেল বেবহৃত হয়ে আসছে। স্বাস্থ্যকর চুল এবং নুতন চুল গজানোর জন্য ডাবর আমলা হেয়ার অয়েল ভারত এবং বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয় একটি তেল। আসুন নিজের ব্যবহারের অভিজ্ঞতা থেকেই ডাবর আমলার রিভিউ টা আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করি-

ডাবর আমলা : ভাল দিক

 ডাবর আমলা অত্যন্ত ভাল মানের তেল এবং চুল মসৃন করার জন্য অত্যন্ত উপযোগী।

 মাত্র কয়েক সপ্তাহ ব্যবহারেই আপনার চুল ঘন হবে অনেক বেশী আর চুল পড়া রোধ করবে। শ্যাম্পু করার আগে আপনি এই তেল গরম করে ব্যবহার করতে পারবেন

ডাবর আমলা : খারাপ দিক

 ধোয়া এবং মিহি চুলে এই তেল ব্যবহার করলে চুলের রঙ পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে।

 আপনি যদি চান তাহলে এই তেল ব্যবহারে আপনি আপনার হালকা বাদামি চুলও কাল রঙে পরিবর্তন করতে পারবেন।

 আরেকটি সমস্যা হচ্ছে জরিবুটি যেমন আয়ুর্ভেদ এর তীব্র গন্ধ যা প্রভাবে মাথা ব্যথার অনুভূতি হতে পারে।

 বড় ছিদ্রের পরিবর্তে যদি এই তেলের বোতলে ছোট ছিদ্র থাকত তাহলে তেল অল্প অল্প করে ফোটায় ফোটায় বের হত।

ডাবর আমলা হেয়ার অয়েল রিভিউ

 

বিস্তারিত

লম্বা, কালো এবং স্বাস্থ্যকর উজ্জ্বল চুল বাড়ানোর জন্য মিনারেল তেল, আমলকি ফল এবং এবং বিভিন্ন সবজির নির্যাসের সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে ডাবর আমলা হেয়ার অয়েল। ডাবর বলেছে যে এই তেল নিয়মিত ব্যবহারে চুল ভেঙে পড়া এবং এবং চুল পড়া রোধ করা যাবে। সুন্দর কাল চুলের জন্য ডাবর আমলা দক্ষিন এশিয়া সহ সমগ্র বিশ্বে ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে। এর ঘ্রানও চমৎকার, হারবালের মত নয়। ঘ্রানের কারণে মনে হয় যে আমলকি না এখানে শুধু মিনারেল তেল ব্যবহার করা হয়েছে।

Benefits-of-Amla-Oil-for-Hair-infographs

বোতল 

ডাবর আমলা হেয়ার পাওয়া যাচ্ছে পেছানো মুখের গাড় সবুজ এইচডিপিই বোতলে। চটচটে ভাব মুক্ত পানির মত তরল এই তেলে আছে আয়ুর্বেদিক সুবাস।

Dabur-Amla-Hair-Oil-after-opening-cap

ডাবর আমলা সম্পর্কে পর্যালোচনা এবং আমার অভিজ্ঞতা

চার মাস আগে সুপারশপ থেকে আমি একটা ডাবর আমলা বোতল কিনেছিলাম। কিন্তু এর তীব্র গন্ধের কারণে কেনার পরের ২০ দিন আমি এটি ব্যবহার না করেই ফেলে রেখেছিলাম। এর গন্ধটা অনেকটা হাসপাতালে পরিষ্কার করার জন্য যেসব সাবান বা ক্লিনার ব্যবহার করা হয় তার মত লাগছিল। কিন্তু আমার চুলে প্রোটিনের মারাত্নক অভাব দেখা দিয়েছিল এবং নারিকেল তেলে কোন কাজ হচ্ছিল না।

 তাই আমি আরেকবার ভাবলাম এবং একবার ডাবর আমলা ব্যবহার করে দেখার সিদ্ধান্ত নিলাম। দেয়ার সাথে সাথে ঘ্রানটা অনেক খারাপ লাগছিল কিন্তু কয়েক মিনিট পরে এর তীব্রতা কমে যেতে লাগল।

আমি শুনেছি এই তেল গরম করে ব্যবহার করলে ভাল ফল পাওয়া যায়। তাই আমি এই তেল গরম করে চুলের আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত ভাল করে দিলাম এবং এক ঘন্টা এভাবেই রেখে দিলাম। অল্প সময়ের মধ্যেই লক্ষ্য করলাম আমার চুলে মসৃন ভাব চলে এসেছে।

সুবিধার বিষয় হচ্ছে এই তেল চটচটে নয়। তারপরে আমি শ্যাম্পু করার আগে ভাল করে চুল ধুয়ে নিলাম। বিস্ময়ের সাথে আমি আমার চুলের কোমলতা অনুভব করতে পারলাম।

তেলের রঙ সবুজ 

এই তেলের রঙ সবুজ কাজেই আপনি যদি আদ্র, জট মুক্ত এবং চিকন কালো চুল পেতে চান তাহলে প্রথমবারের ঘ্রানের কারণে এই তেল কিনতে কোন দ্বিধা করবেন না। বোতলের গায়ে নির্দেশিকায় লেখা আছে যে সপ্তাহে ২-৩ দিন এই তেল ব্যবহার করলে ভাল ফল পাওয়া যাবে।আমার অভিজ্ঞতার আলোকে আমি বলব যে সর্বোচ্চ ফল পাওয়ার তুলনায় এর ঘ্রান কিছুই না। তিন সপ্তাহ ব্যবহারের পর এখন আমার চুল অত্যন্ত মসৃন,ঘন এবং কোমল ও কালো । আমি পেয়েছি অল্প কোকড়ানো ঢেউ এর মত স্বাভাবিক চুল।

amala hair-oil-color

গুরুত্বপূর্ন ব্যাপার হল চুল আগের মতই উজ্জ্বল এবং আগের থেকে দ্রুত বাড়ছে যে কারণে ডাবর আমলা তেল আমার কাছে ভাল লেগেছে। এছাড়াও আমার চুল আগের থেকে অনেক স্বাস্থোজ্জল এবং শক্তিশালী। এটা ঠিক যে গন্ধটা একটু খারাপ কিন্তু এটি ব্যবহারে আমি কোন প্রকার অসুস্থ হয় নি এবং কিছু দিন ব্যবহারের পর আমি এটি ব্যবহারে অভ্যস্থ হয়ে গিয়েছি।

আমি কয়েকজনকে এর ভিতরের উপাদান সম্পর্কে অভিযোগ করতে শুনেছি। অভিযোগকারীদের মতে এই তেল ক্যানোলা তেল থেকে তৈরী করা হয়েছে। এ কারণে আমি ক্যানোলা অয়েলের পুষ্টিগুন সম্পর্কে জানার চেষ্টা করলাম। আমি জানতে পারলাম ক্যানোলা তেল ভিটামিন-ই সমৃদ্ধ এবং এতে আছে উচ্চ পরিমানে ওমেগা-৩ এবং ফ্যাটি এসিড-৬ (ওমেগা-৩ বাদামের তেল থেকেও উচ্চ গুনসম্পন্ন )।

ইন্ডিয়া থেকে শুরু করে সমগ্র এশিয়ায় ডাবল আমলা তেল আয়ুর্ভেদিক গুনাগুনের জন্য সুপরিচিত। আমলকি ঠান্ডা এবং শারীরিক গরমের বিরুদ্ধে এর শক্তিশালী ক্ষমতার জন্য পরিচিত। গ্রীষ্মের গরমে চুলের যখন আপনার চুলের কন্ডিশনিং প্রয়োজন হবে তখন আপনি আমলকি ব্যবহার করে সর্বোচ্চ সুবিধা পাবেন। এটি ধুলোবালি এবং তাপ থেকেও চুলকে রক্ষা করে।

কীভাবে ব্যবহার করবেন ডাবর আমলা হেয়ার অয়েল?

 ভাল ফল পাওয়ার জন্য ডাবর আমলা হেয়ার অয়েল আপনার মাথার ত্বকের প্রতিটি জায়গায় ভাল ভাবে মাখুন। গরম করে মাখা সবচেয়ে ভাল।

 সর্বোচ্চ উপকার পাওয়ার জন্য একরাত এভাবেই রেখে দিন। এরপর সকালে চুল ভালভাবে ধুয়ে শ্যাম্পু করে নিন।

ডাবর আমলা হেয়ার অয়েলর মূল্য এবং পরিমাপ

বোতলের আকার মূল্য(বাংলাদেশী টাকায়)

৪৫ মিলি : ৩৫

৯০ মিলি : 70

18০ মিলি : 140

275 মিলি : 195

450 মিলি : 275

উপাদান

প্যারাফিনাম লিকুইডাম, ক্যানোলা অয়েল, পাম গ্লিসারাইডস, মিনারেল অয়েল, ভেজ অয়েল, ক্যানোলা তেল থেকে নেয়া আমলকির নির্যাস, সুগন্ধি, টি-বিউটল হাইড্রোকুইনাইন।

dabur-amla-hair-oil-ingredients

আরেকটি বিষয় আপনাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে ব্যবহারের পর আপনাকে অবশ্যই চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।

দ্বিতীয়বার ব্যবহার করবেন কিনা?

আপনার মাথার ত্বক যদি তৈলাক্ত হয় তাহলে এই তেল আপনার জন্য নয়। ইতিপূর্বে আমি যে ঘ্রানের কথা বলেছি সেটা একটু কড়া এবং হারবাল/ঔষধি (অনেকের মতে)। তবে এর বিশাল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন না।তবে আমি এই তেল ব্যবহার করা চালিয়ে যাব। আপনার সুবিধার্থে আরেকটি সতর্কবানী দিয়ে রাখি, হালকা রঙের চুল হলে এটি ব্যবহার করা আপনার উচিত হবে না।

কারণ হালকা (মিহি, হালকা বাদামী) চুলে ডাবড় আমলা ব্যবহারে আপনার চুলের রঙ বদলে যেতে পারে এবং পরবর্তীতে স্বাভাবিক রঙ ফিরিয়ে আনতেও অনেক সময় লাগবে। তাই চুল ঘন করার জন্য ও চুল পড়া রোধে আপনি এটা ব্যবহার করতে পারেন।

এক নজড়ে ডাবর কোম্পানী

বিশ্ববাজারে ডাবড় অনেক চাহিদাসম্পন্ন পন্য এবং তাদের পন্য পাওয়া যাচ্ছে ৬০ টিরও বেশি দেশে। এটি মিডল ইস্ট, সার্কভুক্ত রাষ্ট্র সমূহ, আফ্রিকা, আমেরিকা, ইউরোপ এবং রাশিয়ায় অনেক জনপ্রিয়। এই কোম্পানির বর্তমান বয়স হচ্ছে ১৩০ বছর যা ১৮৮৪ সালে আয়ুর্ভেদিক ঔষধি কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করেছিল।

Comments

comments

Join the discussion

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।